টীম আর্জেন্টিনা

June 26, 2018

টীম আর্জেন্টিনা

-মাহফুজ খান

কৈশর থেকে বর্তমানে

বিশ্বকাপ ফূটবলে

প্রিয় দল, আর্জেন্টিনা।

দক্ষতায় ও নৈপুণ্যতায় আছে,

বিশ্বের অন্যতম সেরা স্ট্রাইকার,

লিওনেল মেসি।

বিশ্ববাসী দেখবে আবার,

তার স্ট্রাইকিং পাওয়ার।

চলবে সাপোর্ট,

মিলবে সমীকরণ,

জিতবে টীম।

Advertisements

বিদ্রোহী মজলুম

February 27, 2018

বিদ্রোহী মজলুম

-মাহফুজ খান

আমরা মেহনতি মজলুম

পরিশ্রমের ঘামে, রক্ত পানি করা আমাদের উপার্জন,

সেখানে তোমাদের ঈগল থাবা বড্ড পাষন্ড লাগে।

আমাদের উপর তোমাদের এ নির্যাতন অসহনীয়,

মনুষ্যত্বের মর্যাদা আজ বিলীন,

এবং মানবতা এখানে বিপর্যস্ত।

কেন পিশাচ হয়ে চেটেপুটে খেয়ে যাচ্ছ আমাদের রক্ত?

এই নিপীড়িত আমরাই কি গড়ে দেইনি

তোমাদের বিশাল অর্থ-সম্পদ-বিত্ত?

কেবল নিঃস্ব হয়ে আছি আমরা।

কি অদ্ভুত, তাই না?

বড় হাস‍্যকর লাগে তোমার ভুতুম প‍্যাঁচার হাসি!

তোমাদের বিত্তশালী হয়ে ওঠাতে,

এতটুকু অবদান কি নেই আমাদের?

শ্রম কি এতটাই মূল‍্যহীন?

এতটাই পরিত‍্যাজ‍্য?

তোমাদের সবকিছুই আজ আমাদের শঙ্কিত করে,

ধৈর্যের দেয়ালে আমাদের পিঠ আজ স্হির।

আজ আমরা বিদ্রোহী,

বিদ্রোহ আজ আমাদের একমাত্র হাতিয়ার।

আর রক্ষা নেই, পতন তোমাদের হবেই হবে।

চেয়ে দেখো, ঐ যে একটু দূরে,

সিংহের মতো, বীরের ন‍্যায়,

অতি দ্রুত, ধেয়ে আসছে একজন।

ঘন অন্ধকারে বজ্রপাতের মতো বড্ড স্পষ্ট সে,

কিংবা জীবন্ত আগ্নেয়গিরির মত উত্তপ্ত।

তোমাদের দুর্নীতিগুলোকে ধ্বংস করতে,

সুনামীর মত আজ সে অদম‍্য এবং তীব্র।

কোথায় পালাবে তোমরা?

পালাবে কোথায়?

দেখ! সাহস তার কপালে চন্দ্র টিপ হয়ে আছে।

চেয়ে দেখ, তার চোখ আজ জলন্ত সূর্য,

মজলুমের মুখে হাসি ফোটাতে,

ধেয়ে আসছে সে, অতি দ্রুত, খুব দ্রুত।

তোমাদের রক্ত পিপাসু চোখের,

দাঁত ভাঙ্গা জবাব দিতে,

আসছে সে, কমরেড হয়ে।

তাই সাবধান করছি! সাবধান!

 

সন্তান

June 23, 2017

তোরাই আমার দুই নয়ন

তোদের হাতই আমার হাত

তোদের পা আমার পা

তাইতো আমি স্বপ্ন দেখি

আমার আমিকে

তোদের মাঝে।

​প্রবাসে বৈশাখী

April 14, 2017

প্রবাসে বৈশাখী

-মাহফুজ খান

সুদূর জাপানে আজ এভাবে

মম চিত্তে, উৎসবের আমেজে

হৃদয়ে রেখেছি আজও বৈশাখী আনন্দ সঙ্গীত-

এসো হে বৈশাখ এসো এসো’

নতুন বঙ্গাব্দ,নতুন আশার আলো

জ্বলে উঠুক সবার ঘরে

এসো হে বৈশাখ এসো এসো’

গর্বিত আমি বাঙ্গালী সংস্কৃতিতে

তৃপ্ত আমি বাঙ্গালী ভোজনে।

এসো হে বৈশাখ এসো এসো’

খাওয়ার মজাতে

January 6, 2017

বউ গেছে দেশেতে
খাওয়া-দাওয়া বাইরেতে
প্রতিদিন কাজ শেষে
রিপিটেড মেনুতে
মেজাজটা চরমে
পেটে ক্ষিধে নিয়েতে
বাড়ি ফিরে ফ্রিজেতে
স্যামন মাছ আছে যে
আড় চোখে দেখিতে
পেয়ে গেলাম টেবিলে
কুমড়াটা পেয়াজের পাশেতে
উকি দিয়ে দেখিতেই
সরিষার পাশেতে
আছে মরিচ তাকিয়ে
আর দেরী সয়না যে
মাছ ভাজি করিতে
লেগে গেলাম ভর্তাতে
গরম ভাতের আনন্দে
দুই-তিন প্লেটে
মজা করে খেলাম যে।
———————–
-মাহফুজ খান, ৬/১/২০১৭ ইং।

একটা গান লিখতে চাই তোমার জন‍্য

December 21, 2016

একটা গান লিখতে চাই তোমার জন‍্য
মাহফুজ খান

একটা গান লিখতে চাই তোমার জন‍্য
যার সুরকার হব আমি নিজেই
গানটি আমিই গাইবো
বিশ্রামে যখন তুমি চোখ যুগল বন্ধ রাখবে
ঠিক তখনি গানটি বেজে উঠবে
তোমার মনে হবে সুর গুলো খুব দূরের
অস্থিরতা দিবে না তোমাকে এতটুকু বিশ্রাম।
কিংবা যখন তুমি গাড়িতে করে অফিসে যাবে
তোমার নির্বাচিত গানগুলোর মাঝে আমার গানটিও লুকিয়ে থাকবে
খুব হঠাৎ করেই সেটি বেজে উঠবে
এক অজানা অস্থিরতা তোমাকে ব্যাকুল করবে
তুমি শান্তি পাবে না, শান্তি পাবে না।
আমি চাই তোমার একান্ত মুহুর্তেও এই গানটি বেজে উঠুক
তুমি শান্তি পাবে না, শান্তি পাবে না।

​বন্ধু গল্প

December 20, 2016

​বন্ধু গল্প

– মাহফুজ খান
আজ আমার এক চাইনীজ সহকর্মী বিজনেস ট‍্যুরে জাপানে এসেছে। আমার জন‍্য অনেক গিফট নিয়ে এসেছে।😊😊😊 দুই বছর পূর্বে আমরা একই প্রোজেক্টে  বছর খানেক কাজ করেছিলাম। খুব ভাল একটি টিম ওয়ার্ক ছিল। 

গত সপ্তাহে আমেরিকা থেকে আরেক কলিগ বন্ধু বিশাল আকারের সারপ্রাইজ গিফট পাঠিয়েছে। পেয়ে তো খুব খুশী আমি। 😊😊😊 

আমার বাসা থেকে নারিতা এয়ারপোর্টের দূরত্ব প্রায় ১০০ কিমি। পরশুদিন, বর্তমানে একই অফিসে চাকুরী করি এমন একজন কলিগ আচমকা যখন বলে আগামীকাল আপানাদেরকে এয়ারপোর্টে পৌছে দিয়ে আসবো তখন আবেগকে আর ধরে রাখতে পারেনি। তিনি পরের দিন খুব ভোরে আমার বাসায় হাজির উপকার করার জন‍্য।

মনে করতে থাকি আমার কোন কোন ভালো কাজের জন‍্য তারা আমাকে এতটা মনে রেখেছে। সেই কজগুলো খুব বেশী করে করতে চাই।

এতটা বন্ধন যে আমাকে খুব ইমোশোনাল করে তোলে।😢😢😢
কলিগ যখন বন্ধুতে পরিনত হয় তখন খুব ভালো লাগে। 😊😊😊

দন্ত গল্প

December 19, 2016

​দন্ত গল্প
-মাহফুজ খান
স্থান: ডেন্টাল হাসপাতাল, কাওয়াগুচি, সাইতামা, জাপান।

জাপানে দাঁতের চিকিৎসা খুবই ব‍্যায়বহুল। কথাটি মাথায় রেখে গত চার সপ্তাহ ধরে এখানে আসছি।

“কী যাতনা বিষে, বুঝিবে সে কিসে
কভূ আশীবিষে দংশেনি যারে।”

উপরিউক্ত কবিতার লাইন পড়ে থাকলে বিশ্লেষন নিষ্প্রোয়োজন। চতুর্থতম সাক্ষাতে ডাক্তার বলিলেন, আমাদের এখানে তিন ধরনের দাঁত পাওয়া যায়। সিরামিক, সোনা এবং রূপা। আমাকে তিনটি স‍্যাম্পলই বিস্তারিত বিবরন সহকারে দেখানো হলো।ইমপ্লান্ট খরচ সহ দাত লাগাতে যথাক্রমে তিন লাখ, দুই লাখ এবং পঞ্চাশ হাজার ইয়েন খরচ হবে। সিরামিক দাঁত দেখতে হুবহু আসল দাঁতের মতো। আমি তো অবাক। কিন্তু সাধ এবং সাধ‍্যকে এক ঘাটে আনা যে অনেক কঠিন।তাছাড়া জীবন-যৌবনের অপরাহ্নে এসে সোনা দিয়ে দাঁত বানানোর শখকে বিসর্জন দেয়াই শ্রেয়। কি আর করা! অগত‍্যা রূপার দাঁত লাগানোর জন‍্য ডাক্তার কে অনুরোধ করলাম।ডাক্তার এবং সেবিকার মমতাময়ী চিকিৎসায় খুব সুন্দর ভাবে ব‍্যাথামুক্ত দাঁত ইমপ্লান্ট সম্পন্ন হলো। ডাক্তার ও হাসপাতাল সেবা যে এত সুন্দর ও বিশ্বস্ত হতে পারে তার উদাহরণ হচ্ছে জাপান।

বন্ধু মনে পড়ে কি?

August 8, 2016

​বন্ধু মনে পড়ে কি?

-মাহফুজ খান

বন্ধু মনে পড়ে কি?

ছাত্রবেলার সেই দিনগুলো

হঠাৎ হেসে ওঠার অর্থহীন বিষয়গুলো

অকারনে বান্ধবীদের বাসায়

মিথ‍্যে ছুতোয় হানা দেয়ার দুষ্টুমীগুলো

​বন্ধু মনে পড়ে কি?

বোকামীর জন‍্য একে অন‍্যকে শাষন করা

একসাথে নিজেদের ব‍্যাথায় ব‍্যাথিত হওয়া

আনন্দগুলোকে কেমন করে উপভোগ করা

​বন্ধু,এখনো কি মনে পড়ে?

চোখে জল আসে?

​চিন্তার বিষয়, বাঘ বলেছে আমি মানুষের কাছে যাবো

July 31, 2016

​​চিন্তার বিষয়, বাঘ বলেছে আমি মানুষের কাছে যাবো

-মাহফুজ খান

পিনপতন সমাবেশে হঠাত বাঘের হুঙ্কার

এ অসম্ভব, এটা আমি করতে পারবোনা

ছোট টুনটুনিটা সাহস নিয়ে খুব নিকটে গেল

প্রয়োজনে আমাকে ভক্ষন করে হৃদয়ে প্রশান্তি আনুন

চিত্রা হরিন, গরু এবং মহিষও একই নিবেদন করলো

হাতি খুব চিন্তায় পড়ে গেলো

তাহলে কি কোন উপায় নেই?

বানর দেখলো কুমিরের চোখে জল

ভূতম পেচাঁও কাঁদছে

আরো কাঁদছে ছোট্ট কাঠবিড়ালি

কাক, চিল, ময়না, টিয়াও একসাথে তীব্র প্রতিবাদ করতে লাগলো

বাঘ আবারও হুঙ্কার দিল

সমগ্র সুন্দরবন এগারো মাত্রার ভূমিকম্পে কেঁপে উঠলো

আবারো পিনপতন নিরাবতা

এবার নিরাবতা ভাঙ্গলো সুন্দরী, গেওয়া গরান এবং কেওড়া

আমরাই সবাইকে আশ্রয় ও প্রশান্তি দিয়ে থাকি

দেশের পরিবেশ রক্ষায় আমাদের অবদান অনেক

মহা সমাবেশে সবার দৃষ্টি আকর্ষিত হলো

সাপগুলো একটু নড়ে-চড়ে তাদের সমর্থন জানান দিলো

বাঘ হুঙ্কার দিয়ে বললো আমি কি করতে পারি?

 অজগর বললো আপনি পৃথিবীর বিখ‍্যাত রয়েল বেঙ্গল টাইগার

আপনার আর্জি এদেশের মানুষ শুনবে

বাঘ আবারো হুঙ্কার দিয়ে বললো কেন মূর্খ মানুষের মতো চিন্তা করো?

ইহা অসম্ভব

কচ্ছপ সাহস নিয়ে বললো, সম্ভব

বাঘ রেগে বললো, কিভাবে?

মাছরাঙ্গা বললো, আপনি মানুষের পায়ে ধরুন

আমাদের নিরাপদ জীবনের ভিক্ষা চাইবেন

বাঘ এবার একটু শান্ত হলো

কিছুক্ষন চোখ দুটো বন্ধ রাখলো।

মৌমাছিরা গুনগুন করতে লাগলো

বাঘ চোখ খুলে সবার দিকে দৃষ্টিপাত করলো

রানী মৌমাছির ইশারায় সব মৌমিছিরা শ্লোগান বন্ধ রাখলো

অতপর বাঘ সংক্ষিপ্ত বক্তব‍্য রাখলো

প্রিয় উদ‍্যানবাসী, আপনারা জানেন এখানে আমাদের সংখ‍্যা এক সময় অনেক বেশি ছিল

স্বার্থপর মানুষ অকারনে আমাদের হত‍্যা করেছে

আমরা কখনোই প্রতিবাদ করিনি

আজ আমি আপনাদের চিন্তায় মহা চিন্তিত

আমি প্রয়োজনে মানুষের পায়ে ধরবো

মানুষের কাছে আমাদের জীবন ভিক্ষা চাইবো‌।

সুন্দরবন সবার কাছে চির সুন্দর থাকুক

এই হোক সবার জয়গান।